MRI টেস্ট

MRI টেস্ট কী? খরচ কত ? কোথায় করতে হয় ? MRI test described in Bangla

আজকে আমরা একটা গুরুত্বপূর্ন বিষয় MRI টেস্ট নিয়ে কথা বলব এবং সবার শেষে এমআরআই টেস্ট নিয়ে আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা শেয়ার করব । আর বাজে কথা না বলে চলুন শুরু করি ।

MRI টেস্ট কী?

MRI এর পূর্নরূপ হলো Magnetic resonance imaging।এমাআরআই টেস্ট হলো মানুষের শরীরের ত্রিমাত্রিক ছবি নেওয়ার একটি নিরাপদ পদ্ধতি ।MRI এর মাধ্যমে শরীরের হাড় ছাড়াও টিস্যু, রক্তনালি, মাংসপেশি প্রভৃতির ছবি তোলা যায়।এমাআরআই টেস্ট সিটি স্কান ( City Scan ) এবং X-ray (এক্স রে) এর চেয়ে অনেক নিরাপদ । সিটি স্ক্যান বা এক্স রে ক্ষতিকর আয়নিক বিকিরণ ব্যবহার করে । অন্যদিকে এমআরআই টেস্টে নিরাপদ ম্যাগনেটিক বা চৌম্বকীয় ক্ষেত্র ব্যবহার করা হয় । এমাআরআই টেস্ট রোগ নির্নয় এবং চিকিৎসার অবস্থা নির্নয় করতে ব্যবহৃত হয় । 

কিভাবে MRI কাজ করে ?

যার এমআরআই টেস্ট করা হবে তাকে প্রথমে এমআরআই মেশিনের ভিতরে প্রবেশ করানো হয়।এমআরআই অতি ক্ষমতা সম্পন্ন চৌম্বকীয় ক্ষেত্র তৈরি করে। যার ফলে অতি শক্তিশালী চৌম্বকীয় তরঙ্গ শরীরের ভেতর দিয়ে যায় । চৌম্বকীয় শক্তিশালী তরঙ্গ শরীরের ভেতরের প্রটন গুলোর ( হাইড্রোজেন পরমাণুর ) মধ্যে শক্তির সঞ্চার করে । তারপর এমআরআই মেশিনের চৌম্বকীয় ক্ষেত্র বন্ধ করে দেওয়া হয় । এ পর্যায়ে শরীরের ভেতরের প্রটনগুলো শক্তি বিকিরণ করতে শুরু করে । বিকিরিত শক্তি বিশেষ ধরনের যন্ত্রের মাধ্যমে সংগ্রহ করে শরীরের ভেতরের চিত্র নেওয়া হয় । একই প্রক্রিয়া বার বার করার মাধ্যমে নিখুঁত চিত্র নেওয়া সম্ভব হয় । এক্ষেত্রে এমআরআই মেশিন পরিচালনাকারীর উপর নির্ভর করে চিত্র নিতে কতবার এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে।

এমআরআই টেস্ট করতে প্রায় ৩০ মিনিট সময় লাগে।

MRI report of Knee
হাঁটুর MRI রিপোর্ট

MRI টেস্ট এর  সমস্যা

MRI টেস্টের চারটি সমস্যা আমি চিহ্নিত করেছি সেগুলো হলো: 

  1. শুরুতেই বলা হয়েছে এমআরআই টেস্ট কোন প্রকার ক্ষ্তিকর রশ্মি ব্যবহার করা হয় না । যেমনটা ব্যবহার করা হয় সিটি স্ক্যান বা এক্স-রে এর মধ্যে । তাই এখানে কোন ক্ষতির সম্ভবনা নেই । কিন্তু যেহেতু এখানে অতি শক্তিশালী চৌম্বকীয় ক্ষেত্র ব্যবহার করা হয় । যার পরিমাণ ০.২ টেসলা থেকে ৭ টেসলা পর্যন্ত হয়ে থাকে । কিন্তু আমাদের দেশে সাধারণত ১.৫ টেসলা ক্ষমতা সম্পন্ন এমআরআই মেশিন ব্যবহার করা হয় । ১.৫ টেসলা ক্ষমতা সম্পন্ন চুম্বক ঘরের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে একটা হুইল চেয়ারকে টেনে নিয়ে যেতে পারে । তাই এমআরআই মেশিনে প্রবেশের পূর্বে শরীরে কোন প্রকার ধাতব পদার্থ রাখা যাবে না ।চিকিৎসার জন্য অনেকের শরীরের ভেতরে বিভিন্ন ধাতব বস্তু স্থাপন করা হয়। তাদের জন্য এম আর আই টেস্ট নিরাপদ নয় । বরং খুবই ঝুঁকিপূর্ণ ।
  1. দ্বিতীয় সমস্যা হলো এমআরআই মেশিন অনেক শব্দ করে । মেশিনের ভেতরে  ১২০ ডেসিবেল পর্যন্ত শব্দ হয় । তাই শব্দ প্রতিরোধী হেডফোন ব্যবহার করা হয়ে থাকে ।
  2. আবার এমআরআই মেশিনের মধ্যে গোল গহবরের ভেতরে অনেকে অস্বস্তি বোধ করেন। আবার অনেকে ভয় পান । যদিও এখন দুদিকে ফাকা এমআরআই মেশিন আবিষ্কৃত হয়েছে ।নিচের ছবি দেখুন,কিন্তু আমাদের দেখে এখনো এই মেশিনের ব্যবহার দেখা যায় না ।
  3. একজনের টেস্ট করাতে প্রায় ৩০ মিনিট সময় লাগে । তাই অনেক লম্বা লাইন খাটতে হয় । যেটা খুবই বিরক্তিকর । 
Open MRI machine
দুই দিক খোলা MRI মেশিন

MRI টেস্ট এর খরচ 

এমআরআই টেস্ট , সিটি স্ক্যান বা এক্স-রে এর চেয়ে অনেক বেশি জটিল এবং সময় সাপেক্ষ। তাই এর খরচও একটু বেশি । এমআরআই টেস্ট এর খরচ টেস্ট কোথায় করাচ্ছের তার উপর নির্ভর করে কম বেশি হতে পারে । সঠিক ভাবে বলা সম্ভব না। তারপরও আমি একটু ধারনা দিচ্ছি।  এমআরআই টেস্ট এর খরচ ছয় হাজার টাকার আশেপাশে হয়ে থাকে । এটা কখনই একদম সঠিক দাম না। শুধু সময় ধারণা মাত্র । এই দামকে কোথাও রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না ।

কোথায় MRI টেস্ট করা হয়?

দেশের বেশির ভাগ বড় বড় ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এমআরআই টেস্ট করা হয় । পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, অ্যাপোলো , ল্যাব এইড ইত্যাদি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ছাড়াও জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ের বিভিন্ন হাসপাতাল বা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এমআরআই টেস্ট করানো হয় ।   

MRI machine

আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা?

এবার আমার এমআরআই টেস্ট নিয়ে একটা বাস্তব অভিজ্ঞতা শেয়ার করব । আপনি চাইলে এই অংশটুকু স্কিপ করে যেতে পারেন । এই অংশটুকু পড়া অবশ্য নয় ।

ঘটনাটা আমার আব্বুকে নিয়ে । আব্বুর পায়ের কিছু সমস্যার জন্য একজন নিউরোলজি বিশেষজ্ঞ ডাক্তার এর কাছে যাই। সব কিছু দেখার পর তিনি এমআরআই টেস্ট করতে বলেন । টেস্টের জন্য তিনি কিছুটা ডিসকাউন্ট করে দেন ।( ভালো পরিমাণের ডিসকাউন্ট করে দিয়ে ছিলেন ) । তারপর গেলাম টেস্ট করাতে । যখন যাই তখন প্রায় সন্ধ্যা ৭ টা । যাওয়ার পর জানতে পারলাম ওইদিন টেস্ট করতে গেলে রাত ১০/১১ বেজে যেতে পরে । তাই গেলাম পরের দিন বিকাল ৪ টায় । সব কিছু মিলিয়ে টেস্ট করে, রিপোর্ট পেতে প্রায় রাত ৮ টা বেজে যায় । 

বুঝতেই পারছেন কি অবস্থা হয়েছিল ।

আমার শেষ কথা 

আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি সহজ ভাবে ব্যাখ্যা করার এবং সঠিক তথ্য দেওয়ার । আশা করি আপনি এই পোস্টের মাধ্যম উপকৃত হবেন । কোন বিষয়ে সমস্যা হলে বা কোন কিছু সম্পর্কে জানতে কমেন্ট করতে পারেন । তাছাড়াও এমআরআই টেস্ট করতে আমার কত খরচ হয়েছে ,কত সময় লেগেছে , কোথায় করিয়েছি ইত্যাদি তথ্য জানতে কমেন্ট করতে পারেন ।

কিছু সমস্যার জন্য সেগুলো মূল পোস্ট উল্লেখ করলাম না। এ রকম আরো তথ্যের জন্য নিয়মিত আমাদের ব্লগটা ঘুরে দেখতে পারেন । আজ এটুকুই থাক । কষ্ট করে এতদূর পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ । অনেকে এতবড় পোস্ট সম্পূর্ন পড়েন না। আপনি সম্পূর্ন পরে থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।  

আরো পড়ুন, সিটি স্ক্যান কী? খরচ কত ? কোথায় করতে হয় ?

1 thought on “MRI টেস্ট কী? খরচ কত ? কোথায় করতে হয় ? MRI test described in Bangla”

  1. Pingback: সিটি স্ক্যান কী? খরচ কত ? কেন করতে হয় ? CT scan Bangla- NurPost

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Share via
Copy link
Powered by Social Snap