খতিয়ান কী ?অনলাইনে খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম

খতিয়ান কী ? অনলাইনে খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম

জমিজমা সংক্রান্ত কাজে খতিয়ান একটি বহুল ব্যবহৃত শব্দ ।

বিভিন্ন সময় আমরা এই শব্দটি শুনে থাকি এবং অনেক সময় আমাদের খতিয়ানের প্রয়োজন হয়ে থাকে ।

আমাদের মধ্যে আবার অনেকে আছেন যারা জানেন না খতিয়ান কি , খতিয়ান কোন কোন কাজে ব্যবহৃত হয় এবং কিভাবে খতিয়ান পাওয়া যায় ।

তাই আজকে আমরা জানবো খতিয়ান কি এবং অনলাইনে খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম ।

তাহলে আসুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক ।

আরো পড়ুন ,

খতিয়ান কী ?

আজকের আমরা এই পোস্ট এর মধ্যে দেখব , কিভাবে অনলাইন থেকে আপনার জমির খতিয়ান যাচাই করতে পারেন ।

জমির খতিয়ান হলো এমন একটি বই যেখানে জমি সম্পর্কে সফল তথ্য লেখা থাকে ।

জমির মালিকানা কার, আগে কে ছিল উত্তরাধিকার কার সবকিছু এখানে লেখা থাকে ।

খতিয়ান বের করতে গেলে রেজিস্ট্রি অফিসে অনেক সময় নষ্ট হয় , অনেক বিরক্ত হতে হয় এবং অনেক সময় লাগে ।

কিন্তু আপনি চাইলে এখনি অনলাইন এর মাধ্যমে জমির খতিয়ান যাচাই করতে পারবেন এবং সার্টিফাইড খতিয়ান কপির জন্য আবেদন করতে পারবেন ।

সার্টিফাইড কপির জন্য আবেদন করতে কিছু টাকার প্রয়োজন হবে ।

 তাহলে আসুন দেখে নেই কিভাবে অনলাইনে খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম ।

অনলাইনে খতিয়ান যাচাই করার নিয়ম

অনলাইনে জমি জমা সংক্রান্ত কাজের জন্য বাংলাদেশের একটি পোর্টাল রয়েছে ।

যেটির নাম ই-পর্চা এখান থেকে জমির যাবতীয় তথ্য পাওয়া যায় এবং কাজকর্ম করা হয়ে থাকে ।

আমরা এখান থেকে আজকে জমির খতিয়ান বের করব ।

জমির খতিয়ান বের করার জন্য প্রথমে আপনাকে এই লিংকে যেতে হবে

তারপরে খতিয়ান অনুসন্ধান লেখায় ক্লিক করতে হবে ।

নিচের ছবির মত।

অনলাইনে খতিয়ান অনুসন্ধন

এবার পেজটি লোড হওয়ার পরে আপনি একটি ফরম দেখতে পারবেন ।

ফর্মটা নিজের ছবির মত হবে সকল প্রকার তথ্য দ্বারা পূর্ণ করেন এবং অনুসন্ধান করুন।

অনলাইনে খতিয়ান যাচাই তথ্য

এবার আপনি যদি সকল তথ্য দিয়ে সার্চ করেন ।

 তথ্যগুলো যদি সঠিক হয় তাহলে আপনি খতিয়ান দেখতে পারবেন অথবা অনলাইনে খতিয়ান না থাকলে আপনি খতিয়ানের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

অনলাইনে খতিয়ান সার্টিফাইট কপি আবেদন

অনলাইনে থেকে সার্টিফাইড খতিয়ান কপি পেতে সব মিলে প্রায় ৯০ থেকে ১০০ টাকার মতো চার্জ দিতে হয় ।

যা আপনি মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে পরিশোধ করতে পারবেন।

আমার শেষ কথা 

আজকে আমরা দেখলাম কিভাবে অনলাইন থেকে জমির খতিয়ান বের করতে হয় ।

এগুলো ছাড়া আর অন্যান্য জমি জমা সংক্রান্ত কাজ অনলাইন এর মাধ্যমে করা যায় ।

এ বিষয়ে কয়েকটি পোস্ট আমাদের এই ব্লগে আছে ।

 আপনি চাইলে সেগুলো করে দেখতে পারেন ।

এই পোস্টটি ভাল লাগলে আমাদের ব্লগের অন্যান্য পোস্ট ঘুরে দেখতে পারেন ।

 নতুন নতুন তথ্য সম্পর্কে আপডেট পেতে আমাদের ব্লগটি নিয়মিত ভিজিট করতে পারেন ।

আজকে এটুকুই থাক।

আগামীতে নতুন কোন বিষয় নিয়ে দেখা হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Share via
Copy link
Powered by Social Snap