রূপালী ব্যাংক ডিপিএস | Rupali bank DPS

আশা করি ভালই আছেন । যারা Rupali bank DPS করার চিন্তা করছেন । তাদের জন্য এই আজকের এই পোস্ট । এই পোস্টে আমরা দেখবো রূপালী ব্যাংক এর ডিপিএস বা মাসিক সঞ্চর স্কিম সম্পর্কে।

রূপালী ব্যাংকে ডিপিএস করতে গেলে কি কি কাগজপত্র লাগে, মাসে কত টাকা থেকে কত টাকা পর্যন্ত মাসিক কিস্তি দেওয়া প্রয়োজন হয় , সুদের হার কত এবং কত বছর মেয়াদের ডিপিএস হয়ে থাকে ।

আরো পড়ুন, রূপালী ব্যাংক লোন সমূহ

আর সময় নষ্ট না করে চলুন দেখা যাক রূপালী ব্যাংকের ডিপিএস সম্পর্কে সকল তথ্য।

রূপালী ব্যাংকের মাসিক সঞ্চয় স্কিম বা রূপালী ব্যাংকের ডিপিএস একাউন্ট হলো মাসিক কিস্তি ভিত্তিক সঞ্চয় স্কিম ।

রূপালী ব্যাংকের এই একাউন্টে ৫০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত মাসে জমা দেওয়া যায় এবং খুবই ভালো পরিমাণে সুদের হার রয়েছে।

মাসের যেকোনো তারিখে কিস্তি দেওয়া যাবে ।

পরপর দুই মাসের কিস্তি না দিলে তৃতীয় মাসে সামান্য জরিমানা সহ কিস্তি দিয়ে এই ডিপিএস চালিয়ে যাওয়া যাবে।

এই ডিপিএস জয়েন্ট একাউন্ট হিসেবে কিংবা অপ্রাপ্ত বয়স্কদের নামেও খোলা যাবে ।

এক্ষেত্রে ওই অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে বা মেয়ের লিগ্যাল অভিভাবক এই একাউন্ট পরিচালনা করবেন।

প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর এই অ্যাকাউন্টটি পরিচালনা করতে পারবে।

রূপালী ব্যাংক ডিপিএস এর বৈশিষ্ট সমূহ

  • সুদের হার চক্রবৃদ্ধি হারে ৫.২৫ শতাংশ থেকে ৬ শতাংশ পর্যন্ত হয়ে থাকে।

  • মাসিক কিস্তির উপর ভিত্তি করে সঞ্চয় স্কিম।

  • প্রতিমাসে কিস্তির পরিমাণ ৫০০, ১০০০, ১৫০০, ২০০০, ৫০০০, ১০,০০০, ১৫,০০০, ২০,০০০ এবং ২৫,০০০ টাকা ।

  • তিন বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৫.২৫ শতাংশ । ৫ বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৫.৫০ শতাংশ এবং আট বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৬ শতাংশ।
See also  অগ্রণী ব্যাংক ডিপিএস | Agrani Bank DPS

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

  • অ্যাকাউন্ট পরিচালনাকারী এবং নমিনির জাতীয় পরিচয় পত্র অথবা ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা জন্ম নিবন্ধন সনদ।

  • টিন সার্টিফিকেট অপশনাল।

  • অ্যাকাউন্ট পরিচালনাকারীর দুই কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি এবং নমিনির এক কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি।

Rupali bank DPS শর্তাবলী

  • অ্যাকাউন্ট পরিচালনাকারীকে অবশ্যই ১৮ বছর বা তার চেয়ে বড় হতে হবে।

  • অপ্রাপ্তবয়স্কদের জন্য এই ডিপিএস করা যাবে তার জন্য তার লিগ্যাল অভিভাবক একাউন্ট পরিচালনা করবেন ।

  • ডিপিএস একাউন্ট খোলার আগে গ্রাহককে অবশ্যই একটি নিষ্পাপ্তি একাউন্ট খুলতে হবে।

  • অ্যাকাউন্টের মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে অ্যাকাউন্ট হোল্ডারের মৃত্যু হলে; মৃত্যুর দিন থেকে অবিলম্বে অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে। নমিনি যথাযথ প্রমাণের সাথে অর্থ দাবি করতে পারেন (এজন্য প্রি-ম্যাচিউর নগদকরণ নিয়ম প্রযোজ্য হবে)।

  • সরকারি কর প্রযোজ্য হবে।

আমার শেষ কথা

আশা করি আজকের এই পোষ্টের মাধ্যমে রূপালী ব্যাংকের সম্পর্কে সকল তথ্য জানতে পেরেছেন ।

যদি কোন বিষয়ে সম্পর্কে অস্পষ্ট ধারণা থাকে এবং ভালোভাবে জানতে চান তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট করে জানাতে পারেন ।

আমাদের পোষ্টের মাধ্যমে আমরা শুধুমাত্র ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করে থাকি ।

সময়ের সাথে ডিপিএস এর মেয়াদ সুদের হার ইত্যাদি পরিবর্তন হতে পারে ।

তাই একদম সঠিক তথ্যের জন্য এবং এই ডিপিএস একাউন্ট খোলার জন্য আপনার নিকটস্থ রূপালী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড এর যে কোন শাখায় যোগাযোগ করুন ।

তারা আপনাকে আরো ভালোভাবে সবকিছু বুঝিয়ে বলতে পারবে ।

আজকে এটুকুই থাক । 

এরকম আরো নতুন নতুন তথ্য সমৃদ্ধ ব্লগ পোস্টের জন্য আমাদের এই ব্লগটি ঘুরে দেখতে পারেন।

প্রায়শই জিজ্ঞাসিত কিছু প্রশ্ন

রূপালী ব্যাংকের ডিপিএস কত বছরের হয় ?

৩ বছর, ৫ বছর এবং ৮ বছরের জন্য ।

রূপালী ব্যাংকের ডিপিএস এর সুদের হার কত ?

তিন বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৫.২৫ শতাংশ । ৫ বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৫.৫০ শতাংশ এবং আট বছরের জন্য ডিপিএস করলে সুদের হার ৬ শতাংশ।

See also  ক্রেডিট এবং ডেবিট কার্ড কী ? এদের মধ্যে পার্থক্য কী?
কত তারিখের মধ্যে কিস্তি দিতে হয় ?

মাসের যে কোন দিন দেওয়া যায় ।

3 thoughts on “রূপালী ব্যাংক ডিপিএস | Rupali bank DPS”

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap