Web 3.0 কী?Web 3.0 কিভাবে কাজ করে?

ব্লকচেইন আর ক্রিপ্ট কারেন্সি আসার পর থেকে আমরা একটা নতুন শব্দের সাথে পরিচিত হয়েছি।সেটি হলো Web 3.0 ।

আজকের এই পোস্টে আমরা Web 3.0 বা Web 3 নিয়ে কথা বলব।Web 3.0 নিয়ে কথা বলার আগে Web 1.0 এবং Web 2.0 নিয়ে একটু কথা বলব।আপনি যদি শুধু Web 3.0 সম্পর্কে পড়তে চান।তবে টপিক লিস্ট থেকে Web 3.0 সেকশনে চলে যান ।

Web 1.0 / Web1: 

Web 1.0 হলো মূলত স্ট্যাটিক ওয়েব সাইট।ওয়েবের জন্ম হয় Web 1.0 এর মাধ্যমে।Web 1.0 এর যুগে আমরা শুধুমাত্র ওয়েব সাইটে গিয়ে তথ্য দেখতে পারতাম।নিজেরা তথ্য দিতে পারতাম না।যেমন: কোন কিছুতে কমেন্ট করতে পারতাম না।ফেসবুক,টুইটার, ইনস্ট্রাগ্রামে যেমন পোস্ট করতে পারি তখন সেটা সম্ভব ছিল না।এটা ছিল একমুখী ব্যবস্থা।ওয়েব সাইটের মালিক তথ্য দিয়ে রাখত আমরা ওয়েব সাইট ভিজিট করে সেই তথ্য দেখতাম।সাইটের ব্যবহার কারীদের মধ্যে সেই সময় মিথস্ক্রিয়া হতো না।1990 এর দশক ছিল Web 1.0 এর সময়।

এই ওয়েব সাইট গুলো মূলত HTML ও Css ব্যবহার করে তৈরি হয়ে ছিল।

Web 1.0 featured image

Web 2.0 / Web2:

2000 এর দশকে আমরা পরিচিত হই Web 2.0 এর সাথে।এবার ওয়েব সাইটের অমুল উন্নতি হলো।আমরা নিজেরা মানে ব্যবহার কারীরা চাইলেই ওয়েব সাইটে নিজেদের তথ্য দিতে পারি।বিভিন্ন ফর্ম পূরণ করতে পারি,কোন পোস্টে কমেন্ট করতে পারি।Web 2.0 এর উপর ভিত্তি করে ফেসবুক,টুইটার, ইনস্ট্রাগ্রাম আরো অনেক সোশ্যাল মিডিয়া আসল। মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ,টেলিগ্রাম এর মতো মেসেঞ্জিং অ্যাপ আসলো।তবে সবচেয়ে বড় যেই পরিবর্তন Web 2.0 এনেছে সেটা হলো E-commerce। আমাদের জীবনে E-commerce এর গুরুত্ব বা ভূমিকা কতটা আমার পাঠকরা অবশ্যই জানেন।Web 2.0 জন্ম হয় php, java এর মতো সার্ভার সাইট স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজের মাধ্যমে।যেখানে ইউজারের কাছে তথ্য নিয়ে সার্ভারে তা সংরক্ষণ,পরিবর্তন বা ডিলিট করা যায়।বর্তমান সময়ের ওয়েব সাইটগুলো খুবই উন্নত।AI, Machine Learning প্রযুক্তি ব্যবহার করে যেগুলো আরও উন্নত হচ্ছে।

Web 2.0 featured image
Simple web 3.0 written image

Web 3.0 / Web3:

Web 3.0 নিয়ে মূল কথা বলার আগে আমি কিছু কথা বলতে চাই।

দেখুন Web 3.0 একদম সুনির্দিষ্টভাবে সঙ্গায়িত নয়(আমি যতটুকু জেনেছি)।তাই একেকজন একেক রকম কথা বলবে।এতে বিচলিত হওয়ার কারন নেই।Web 3.0 এর মূল কথা একটাই সেটা হলো Decentralization বা বিকেন্দ্রীকরণ। Blockchain, Metaverse, Cryptocurrency, Nft ইত্যাদি নিয়েই Web 3.0 ।

E-commerce site photo

Decentralization / বিকেন্দ্রীকরণ :

নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে এর কোন Centre বা কেন্দ্র থাকবে না।

Web 3.0 এর সময়ে কোন নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষ এটাকে নিয়ন্ত্রণ করবে না।আমাদের ব্যক্তিগত তথ্য বর্তমান সময়ে গুগল,ফেসবুক,টুইটার,আমাজন ইত্যাদি টেক জায়ান্টের হাতে আছে।তারা এটার ইচ্ছামত ব্যবহার করছে।তারার এখন ইন্টারনেটের হর্তাকর্তা।ফেসবুক চাইলেই আমাদের একাউন্ট ডিলিট করতে পারে,গুগল চাইলেই আমাদের Gmail বন্ধ করে দিতে পারে।আবার আমরা জানি টুইটার Donald Trump এর একাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছে ।Web 3.0 এর সময়ে কারো একার ইচ্ছায় এটা হবে না।Web 3.0 সম্পূর্নভাবে Blockchain টেকনলেজির উপর নির্ভর করবে।

এটা হবে ক্রিপ্ট ও টোকেন basied সিস্টেম।এখানে আপনি কোন মধ্যবর্তী মাধ্যম ছাড়াই তথ্য,টাকা-পয়সা সরাসরি আদান প্রদান করতে পারবেন।

আরও পড়ুন,

রকেট ( Rocket ) ব্যবহার করে এটিএম (ATM) থেকে টাকা তোলার পদ্ধতি

Decentralization এর সুবিধা

Decentralization এর অনেক সুবিধা রয়েছে।এর মধ্যে কিছু,

করো তত্ত্বাবধানে না থাকা

যেহেতু নির্দিষ্ট কোন অথরিটির হতে নিয়ন্ত্রন থাকবে না।তাই Web 3.0 এর কোন সাইট থেকে ওই ওয়েব সাইটের মালিক চাইলেই আমাদেরকে বাদ দিতে পারবে না।কারন web 3.0 তে আমাদের তথ্য কোন নির্দিষ্ট কম্পিউটারে থাকবে না।ওই নেটওয়ার্কের সকল কম্পিউটারে থাকবে।কেউ যদি কোন কমপিউটারের তথ্য ডিলিট বা নষ্ট (Corrupt) করে দেয় তাহলেও অন্য কম্পিউটার থেকে সঠিক করে নেবে।একই সাথে ওই নেটওয়ার্কের সকল কম্পিউটার থেকে একই তথ্য ডিলিট করে অসম্ভবের কাছাকাছি।

নিরাপত্তা নিশ্চিত করা:

আগেই বলা হয়েছে আমাদের তথ্য নির্দিষ্ট কোন কম্পিউটারে থাকে না।তাই কেউ চাইলেই নষ্ট করতে পারবে না।তাই আমাদের তথ্য নিরাপত্তার সাথে সংরক্ষিত থাকবে।

তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষা:

আমাদের তথ্য নেটওয়ার্কের সকল কম্পিউটারে থাকে Encrypted আকারে।তাই যে কেউ চাইলেই আমাদের তথ্যের ইচ্ছা মত ব্যবহার করতে পারবে না।আর এভাবেই আমাদের তথ্যের গোপনীয়তা রক্ষা পায়।

Decentralization এর অসুবিধা:

Decentralization এর সম্পর্কে অনেক ভালো ভালো কথা বললাম এবার একটু অন্য কথা বলা।

আরও পড়ুন,

Monkeypox রোগের উৎপত্তি ও বিস্তার

Abuse

যেহেতু এখানে নির্দিষ্ট কোন অথরিটি নিয়ন্ত্রণ করে না তাই মিথ্যা তথ্য ও হেট স্পিস(hate speech) ছড়াতে পারে।যা কেউই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না।

অসৎ উদ্দ্যেশে সম্পদের আদান প্রদান

এছাড়াও  কোন মাধ্যম ছাড়াই যেহেতু ক্রিপ্টকারেন্সির মাধ্যমে টাকা-পয়সা আদান প্রদান করা যায়।তাই অপরাধ মূলক কাজ কর্মের জন্য বিনা বাধায় টাকা-পয়সা আদান প্রদান করা যাবে।যা বন্ধ করা তো সম্ভবই না ,এমনকি টাকা কোথা় থেকে এলো আর কোথায় গেলো তাও জানা যাবে না।

Web 3.0 কী পোস্টে আমার শেষ কথা:

যাইহোক এতকথার পরে একটাই কথা,

দিন দিন সবকিছু পরিবর্তন হয় ।ঠিক তেমনি আমাদের বর্তমান ওয়েবও পরিবর্তন হবে।যেমন হয়েছে Web 1.0 থেকে Web 2.0 তে।তাই Web 2.0 থেকে Web 3.0 তে উন্নিত হবে।তবে তা একদিনেই হবে না ।কিন্তু একদিন হবে।যেদিন হবে সেদিন সকলেই দেখতে পারব ।

কোন সমস্য হলে বা আপনার মতামত কমেন্টে দিতে ভুলবেন না।

আরও পড়ুন, স্টারলিংক কি এবং কিভাবে স্টারলিংক কাজ করে

6 thoughts on “Web 3.0 কী?Web 3.0 কিভাবে কাজ করে?”

  1. Pingback: Compitive programming কী। কিভাবে Competitive programming শুরু করতে হবে।Compititive programming in bangla - NurPost

  2. Pingback: Blockchain কী? কীভাবে কাজ করে?What is Blockchain? How Blockchain works? in Bangla - NurPost

  3. Pingback: Monkeypox রোগ এর উৎপত্তি ও বিস্তারের কারণ - NurPost

  4. Pingback: ২০২২ সালে অনলাইনে ইনকাম করার সেরা উপায় - NurPost

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Share via
Copy link
Powered by Social Snap