আইওটি ( IOT ) কি?কিভাবে কাজ করে? What is IOT and how it works in bangla

You are currently viewing আইওটি ( IOT ) কি?কিভাবে কাজ করে? What is IOT and how it works in bangla
পোস্টটি শেয়ার করে নিজে রাখতে পারেন এবং আপনার বন্ধুদের পড়ার সুযোগ করে দিতে পারেন ।

আইওটি ( IOT ) এর পূর্ন অর্থ হলো ইন্টারনেট অফ থিংস( Internet Of Things )। এই প্রযুক্তি এসে আমাদের দৈনন্দিন জীবন পাল্টে দিয়েছে । আইওটি ( IOT ) আমাদের জীবনের সাথে সম্পুর্ন ভাবে লেপ্টে গেছে। আইওটির মাধ্যমে বিভিন্ন ইলকট্রনিক যন্ত্র আমাদের জীবনকে করেছে সহজ। আইওটি ( IOT ) নিয়ে সম্পুর্ন স্পষ্ট ধরনা পেতে এই পোস্টটি পড়তে পারেন। আর বাজে কথা না বলে চলুন শুরু করি ।

আইওটি ( IOT ) কি

আইওটি ( IOT ) কি

আইওটি ( IOT ) বা ইন্টারনেট অফ থিংস( Internet Of Things ) হলো বিভিন্ন ইলেকট্রিক যন্ত্র ইন্টারনেটের মাধ্যমে একে অন্যে সাথে যুক্ত থেকে কাজ করে আমাদের জীবনকে সহজ করে দিবে । আমাদের দৈনন্দিন জীবনের প্রায় সকল ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত থাকবে। আমরা আমাদের ফোনের সাহায্যে পৃথিবীর যে কোন জায়গা থেকে সেটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারব ।মাঝেমাঝে কিছু ডিসিশন ওই যন্ত্রটিও স্বয়ংক্রিয়ভাবেই নিতে পারবে।  যেমন: ঘরের তাপমাত্রা বেশি হয়ে গেলে এসি বা ফ্যান অন করা, আবার ঘরের ভিতরে কেউ না থাকলে লাইট, ফ্যান, এসি ইত্যাদি অফ করা।

আরও পড়ুন, কিভাবে বিটকয়েন কেনা যায় । How to buy Bitcoin

আইওটি ( IOT ) কিভাবে কাজ করে

আইওটি কি ভাবে কাজ করে সেটা একটা গল্পের মাধ্যমে বলি ।

একদিন সকালে ঘুম থেকে উঠার আগেই দেখলেন কেউ আপনার বাড়ির কলিং বেল বাজাচ্ছে । বাইরে গিয়ে দেখলেন কেউ নেই । দরজা লাগাতে গিয়ে দেখলেন একটা কাগজের বাক্স । আপনি সেটাকে ঘরের ভিতরে নিয়ে আসলেন এবং সেটা খুলে দেখলেন ,আপনার কিছু ঔষধ, দুধ আর ব্রেড ।আপনি সেগুলোকে নিয়ে জায়গা মত রেখে দিলেন । তারপর আপনি ব্রাশ করে , হাতমুখ ধুয়ে, সকালের নাস্তা সেরে , ঘরের সকল ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতি বন্ধ করে কাজে গেলেন । তারপর আপনার মনে হলো আপনি আপনার বেড রুমের ফ্যান বন্ধ করেন নি। আপনি আপনার মোবাইল দিয়ে ফ্যানটি বন্ধ করে দিলেন। বিকালে কাজ শেষ করে গরমে ঘেমে আপনি বাসায় এলেন। এসে দেখলেন আপনার ঘরের এসিটি অন করা , ফ্যান ,লাইট অন করা। 

আইওটি ( IOT ) কিভাবে কাজ করে

গল্প এটুকুই থাক এবার কাজের কথায় আসি।

আপনার বাড়ির যে ফ্রিজটা আছে সেটা একটা স্মার্ট ফ্রিজ। ওই ফ্রিজের ভেতর দুধ না থাকায় দুধের অর্ডার দিয়ে দিয়েছে। কিন্তু আপনার ফ্রিজে তো ব্রেড আছে। তারপর অর্ডার করেছে ।কারণ সেটার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে গিয়েছে । আর আপনার গুগল ক্যালেন্ডার অনুযায়ী আপনার ঔষধ শেষ । তাই ঔষধও অর্ডার করে দিয়েছে । আর আপনার ফ্যানটির মধ্যেও একটা ছোট কম্পিউটার লাগানো আছে। (আসলে আপনার ঘরের সকল ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির মধ্যে ছোট একটা কম্পিউটার লাগানো আছে)। যেটা ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত । যার ফলে আপনার ফোন দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করে আপনার ফ্যান টি অফ করতে পেরেছেন। আপনি বাড়ির সামনে আসার ফলে গুগল ম্যাপস থেকে আপনার লোকেশন জেনে ফ্যান ও এসি টি অন হয়েছে ।

এই হলো Behind the seen।

আশা করি বুঝে গেছেন কিভাবে আইওটি ( IOT ) কাজ করে। 

আইওটি ( IOT ) এর প্রয়োজনীয়তা

বর্তমান সময় উন্নত বিশ্বে ব্যাপক ভাবে আইওটির ব্যবহার হচ্ছে । আশা করা যায় আর কয়েক বছরের মধ্যে আমাদের দেশেও আইওটির ব্যবহার ব্যাপক ভাবে দেখা যাবে ।আইওটির ব্যবহারের ফলে আমাদের জীবন যেমন হবে সহজ। তেমনি কাজ যেগুলো আমাদের করতে বিরক্ত লাগে সেগুলো আর করতে হবে না। যেমন: লাইট বা ফ্যান বন্ধ করা , চাবি দিয়ে তালা খোলা ইত্যাদি । ভবিষ্যতে  আইওটির ব্যবহার আরো ব্যাপক আকার ধারণ করবে ।কারণ ইন্টারনেটের গতি দিন দিন বাড়ছে, নতুন নতুন প্রযুক্তির আবিস্কার হচ্ছে। কম্পিউটার ছোট হতে হতে একদম ক্রেডিট কার্ডের সমান হয়ে গেছে । যাকে পাই কম্পিউটার বলে। যেমন, রাজবেরি পাই

অনেক ক্ষুদ্র জায়গায় কম্পিটার এটে যাওয়ায় টিভি, ফ্রিজ, লাইট, ফ্যান, এসি সবকিছুর ভিতরে কম্পিউটার বসানো সম্ভব হচ্ছে। অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত টিভির ভিতরে ছোট কম্পিউটার বসানো থাকে। যার ফলে আমরা অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম টিভির ভিতরে চালাতে পারি। ( আমাদের হাতের ফোনটিও কিন্তু এক একটা কম্পিউটার) ।

আইওটি ( IOT ) এর খারাপ দিক

সব কিছুরই একটা না খারাপ দিক থাকে । আইওটিও তার ব্যতিক্রম নয়। আইওটিও কিছু খারাপ দিক আছে। সবচাইতে বড় যে সমস্যা সেটা সবার আগে বলি,

সবচেয়ে বড় যে সমস্যা সেটা হলো হ্যাকিং। 

হ্যা, আজকের দিনে এসেও এটা একটা বড় সমস্যা । সাইবার সিকিউরিটি একটা খুবই গুরুত্বপূর্ন ইস্যু । আমরা চাইলেও একটা আইওটি ডিভাইসকে ১০০% নিরাপদ করতে পারব না । যদি আমরা ১০০% নিরাপদ করি তাহলে সেটা আর ব্যবহার উপযোগী থাকবে না । এটা সাইবার সিকিউরিটি অভিজ্ঞ রুবায়েত আকবরের কথা ।

আইওটি সবকিছুকে আটমেশন করে ফেলছে । যায় ফলে আমরা দিন দিন কুড়ে হয়ে যাচ্ছি। যা আমাদের স্বাস্থের পক্ষে ভালনা । তাছাড়া আমরা জানি ইলেকট্রিক যন্ত্রপাতির মাঝে মাঝে সমস্যা বা যান্ত্রিক ত্রুটি হয়। যান্ত্রিক ত্রুটি বা সমস্যার ফলে অনেক সময় অনেক ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে । যার ফলে অনেক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। 

আইওটি ( IOT ) প্রয়োজনীয়তা

Conclusion

আজকের এই পোস্ট আমি আইওটি নিয়ে অনেক বক বক করলাম। আমি যতটুকু জানি সবটুকুই জানানোর চেষ্টা করেছি। যদি কোন ভুল হয় তাহলে দেখিয়ে দেবেন।  আর কোন প্রকার সমস্যা হলে না কোন কিছু না বুঝলে কমেন্ট করুন।

This Post Has One Comment

Leave a Reply

Md Nuruzzaman Islam

Hello Dear, I'm Md Nuruzzaman Islam known as Niloy. I'm a tech enthusiast and passionate Content Writer.