ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাতে সহায়তা ছাড়াই কিছু নিয়ম ও কার্যক্রম অনুসরণ করা যেতে পারে। নিম্নে কিছু পরামর্শ দেওয়া হলো:

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

Table of Contents

প্রাথমিক ধারণা পালন করুন

প্রথমেই সহবাস সময়ে বীর্যপাত নিয়ন্ত্রণ করার জন্য স্বাস্থ্যগত পরামর্শ গ্রহণ করা উচিত। নিরাপদ সহবাস পদ্ধতি অনুসরণ করার সাথে মনোযোগ দিতে হবে।

 

বিশ্রাম ও স্বাস্থ্যগত যত্ন নিন

সহবাস পূর্বে ভালো করে বিশ্রাম নিন। যত্ন নিয়ে খেতে হবে, পান করতে হবে এবং পরিমিতিমাত্রা রক্ষা করতে হবে। স্বাস্থ্যগত দক্ষতা মেনে চলার মাধ্যমে সহবাস সময়ে বীর্যপাত নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

 

মনে রাখুন যে নিরাপদ কোনো নির্দিষ্ট সময়ে বীর্যপাত ঘটবে না

মনে রাখুন যে নিরাপদ সহবাস পদ্ধতি ব্যবহার করলে নির্দিষ্ট সময়ে বীর্যপাত না হওয়া সম্ভব। সহবাস সময়ে বীর্যপাতের চেয়ে পরের দিনের সময়ে পুরুষের পরিবার প্রতিষ্ঠান সংগঠিত থাকতে পারে।

 

সহবাসের সময় নিয়মিত উপস্থিত থাকুন

সহবাসের সময় একটি নিয়মিত রূপান্তর প্রয়োজন হতে পারে। পার্টনারের সাথে পরামর্শ করুন এবং আপনার পছন্দসই সময়টি নির্বাচন করুন। এটি সম্ভব হলে বীর্যপাত আগে হতে পারে।

 

মনে রাখুন যে এটি একটি নির্দিষ্ট ক্ষমতা নয়

বীর্যপাতের সময় নিয়ন্ত্রণ করতে কঠিন হতে পারে এবং এটি সবার জন্য সমানভাবে কার্যকরী হবে না। এটি নিজেকে নিরাপদ রাখার জন্য অন্য পদ্ধতিগুলির সাথে সমন্বয় করা উচিত।

 

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

এই পরামর্শগুলি অনুসরণ করে আপনি সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। তবে, যদি বীর্যপাতের সমস্যা দ্বিগুণ হয় বা কার্যকরী পরিবর্তন না হয়, তবে আপনার স্বাস্থ্যকে সমর্থন এবং পরামর্শের জন্য একজন চিকিৎসকে দেখানো উচিত।

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে অনেক্ষণ যেভাবে

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে অনেক্ষণ করার জন্য কিছু পরামর্শ মেনে চলতে পারেন। নিম্নে কিছু কার্যক্রম দেওয়া হলো:

 

সান্ত্বনার পর্যায় বৃদ্ধি করুন

সহবাসের সময় আপনার ও আপনার পার্টনারের মধ্যে সান্ত্বনা ও প্রেম বাড়ানো উচিত। স্নেহালু কথা বলুন, পরামর্শ দিন এবং পরস্পরের সাথে সম্মিলিত থাকুন। এটি সহবাসে আনন্দ ও মনোরম মিলন তৈরি করতে পারে।

 

সাম্য এবং স্বস্তি বজায় রাখুন

মানসিক তাড়াতাড়ি এবং চার্মিক উত্তেজনা বীর্যপাতে বৃদ্ধি করতে পারে। এতে মনে রাখবেন যে সহবাসের সময় আপনার মন শান্ত এবং সাম্যিক হতে হবে। মানসিক স্থিরতা প্রাপ্ত করার জন্য মেডিটেশন, নিঃশ্বাস-বিশ্রাম, যোগাযোগ ও মনোযোগ প্রায়োগিকতা সহ যোগাযোগ উন্নতি করতে পারেন।

 

কামক্রিয়া প্রস্তুতি করুন

পূর্বে সহবাসের সময় শরীরে প্রস্তুতি করলে বীর্যপাত ঘটার সময় বাড়তি সময় লাগতে পারে। ফলে প্রাকৃতিকভাবে বীর্যপাতের সময় সংকোচন এবং নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখা সম্ভব। একটি কামক্রিয়া করতে আগে ডান্ডা, শ্বাসকণ্ঠ ব্যবহার ও সামান্য বিনোদনের মাধ্যমে আপনার তাড়াতাড়ি কমাতে পারেন।

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

এই কার্যক্রমগুলি অনুসরণ করলে আপনি ঔষধের সাহায্য ছাড়াই সহবাসে অনেক্ষণ পাবেন। তবে, যদি সমস্যা দ্বিগুণ হয় বা পরিবর্তন না হয়, তবে আপনার চিকিৎসকে দেখানো উচিত।

 

ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সহবাস করতে চাই

ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সহবাস করতে চাই

দীর্ঘ সময় ধরে সহবাস করার জন্য ঔষধ ছাড়াই কিছু কার্যক্রম অনুসরণ করা যেতে পারে। তবে মনে রাখবেন যে সহবাসের সময় পার্টনারের সম্মতি ও সুখপ্রদ অবস্থা মেনে চলা উচিত। কিছু পরামর্শ হলো:

 

প্রাকৃতিক স্থিতিশীলতা

দীর্ঘ সময় ধরে সহবাসের আগে ও পরে প্রাকৃতিক স্থিতিশীলতা ধরে রাখতে হবে। এটি শরীরের তাড়াতাড়ি কমিয়ে তুলতে পারে এবং সহবাসের সময় বিনোদন বা সান্ত্বনার মাধ্যমে বীর্যপাত সময় বাড়াতে সহায়তা করতে পারে।

 

বীর্যপাতের পূর্ববর্তী প্রস্তুতি

দীর্ঘ সহবাস আগে প্রস্তুতি করলে বীর্যপাত সময় বাড়াতে সহায়তা করতে পারে। আগে শারীরিক ব্যায়াম করুন, প্রাকৃতিক শিথিলতা সাধারণ করুন এবং মানসিক স্থিতিশীলতা বজায় রাখুন।

 

বাস্তবিকতা মেনে চলা

সহবাসের সময় আপনি ও পার্টনারের মধ্যে বাস্তবিকতা মেনে চলা উচিত। মনোযোগ দিন এবং আরামদায়ক পরিবেশ তৈরি করুন। প্রাকৃতিক প্রকৃতি এবং পার্টনারের সুখপ্রদ অবস্থা মেনে চলতে প্রচুর সময় দিন।

 

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

এই পরামর্শগুলি মেনে চললে আপনি ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সময় সহবাস করতে পারেন। তবে, মনে রাখবেন যে প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত যদি সমস্যা দ্বিগুণ হয় বা অসুবিধা হয়।

 

দীর্ঘ সহবাস কিভাবে করব?

ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সহবাস কিভাবে করব? ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সময় সহবাস করার জন্য কিছু পরামর্শ নিচ্ছি:

 

সান্ত্বনার পর্যায় বৃদ্ধি করুন

সহবাসের সময় আপনার ও পার্টনারের মধ্যে সান্ত্বনা বা স্নেহালু বাতচ্চী বাড়ানো উচিত। পার্টনারের সুখপ্রদ অবস্থা নিশ্চিত করুন এবং পরস্পরের সঙ্গে মনোযোগ এবং সংযোগ বজায় রাখুন।

 

দীর্ঘ সময় পরিচর্যা করুন

সহবাসের আগে এবং পরে উপযুক্ত স্বাস্থ্যসম্মত পরিচর্যা করুন। ভালো পরিচর্যা শরীরের তাড়াতাড়ি কমিয়ে তুলতে পারে এবং সহবাসের সময় সংকোচন এবং নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে সহায়তা করতে পারে। ভালো পরিচর্যা মানে পর্যাপ্ত আহার, নিয়মিত ব্যায়াম এবং শারীরিক স্বাস্থ্যের পরিচর্যা।

 

মনোযোগ ও মনঃস্থিরতা

সহবাসের সময় মনে রাখুন যে মনোযোগ এবং মনঃস্থিরতা বজায় রাখা প্রয়োজন। চিন্তামুক্ত থাকুন এবং সহবাসে উপভোগ ও সুখের মাধ্যমে মন এবং শরীর সম্পূর্ণ ভাবে জোগান করুন। ধ্যান এবং মেডিটেশনের মাধ্যমে মনঃস্থিরতা অর্জন করতে পারেন।

 

ঔষধ ছাড়াই সহবাসে দ্রুত বীর্যপাত ঠেকাবেন যেভাবে

এই পরামর্শগুলি মেনে চললে আপনি ঔষধ ছাড়াই দীর্ঘ সময় সহবাস করতে পারেন। তবে, এটি প্রকৃতির প্রয়োজনে পরামর্শ দেওয়া হলো এবং সমস্যা দ্বিগুণ হয় বা অসুবিধা হয় তবে আপনার চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করা উচিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *